বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫৪ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি
আমাদের পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে !!!

ওলামায়ে কেরামকে নিয়ে বিষোদগার দেশের তৌহিদি জনতা বরদাশত করবে না-জুনায়েদ বাবুনগরী

সংবাদ দাতা
  • প্রকাশিত : শনিবার, ২ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৮২ জন পড়েছেন

 

কামাল উদ্দীন চৌধুরী:

হেফাজতে ইসলামী বাংলাদেশের আমীর ও হাটহাজারী মাদরাসার শিক্ষা পরিচালক শায়খুল হাদিস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, যত ষড়যন্ত্র করা হোক না কেন কওমি মাদরাসা কেউ বন্ধ করতে পারবেনা। কেয়ামত পর্যন্ত কওমি মাদরাসা চালু থাকবে। হাটহাজারী মাদরাসা জনগণের (কওম) মাদরাসা, আমরা তাদের চাকর, এ মাদরাসা কওমের (জনগণের) সহযোগিতায় চলে। কোন বিদেশি দেশি ষড়যন্ত্র কওমি মাদরাসা বন্ধ করতে পারবে না। দেশের হক্কানী আলেম ওলামা সম্মানের পাত্র ওলামায়েকেরাম আল্লাহর অলি। আলেম-ওলামাদের সাথে বেয়দবি কখনো সহ্য করা হবে না। নাস্তিক-মুরতাদ অপশক্তির ধ্বংস করতে প্রয়োজনে শহীদ হব।শরীরে এক ফোঁটা রক্ত থাকতে বাংলাদেশকে স্পেন হতে দেব না।

তিনি শুক্রবার (১জানুয়ারি) জুমার নামাজের পরে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অন্যতম দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মইনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার বার্ষিক মাহফিল ও দস্তারবন্দি সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

দিনব্যাপী এ মাহফিলে মাদরাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস মুফতী জসিমুদ্দীনও শিক্ষক নূরুল আবছারের যৌথ সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন হযরত মাওলানা আল্লামা শেখ আহমদ, মাওলানা ইয়াহইয়া, মাওলানা সালাহ উদ্দীন, মাওলানা নূরুল ইসলাম, হযরত মাওলানা নোমান ফয়জী, মুফতী জসীম উদ্দীন, মুফতী কিফায়াতুল্লাহ, মাওলানা আশরাফ আলী নিজামপুরী, ড.আফম খালিদ হোসেন, মাওলানা সাজেদুর রহমান, মাওলানা মামুনুল হক,মাওলানা জুনায়েদ আল-হাবীব, মুফতী আব্দুল হালিম বোখারী, মাওলানা লোকমান, মাওলানা খোবাইব, মুফতী হাবীবুর রহমান, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মাওলানা আব্দুল বাসেত খান সিরাজী, মাওলানা সাআদাত, মাওলানা নূরুল আবছার,মাওলানা আজীজুল হক আল-মাদানী, মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ূবী প্রমূখ।
তিনি আরো বলেন, সম্প্রতি করোনাকালীন সময়ে যখন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মানুষ মারা যায়, মৃত ব্যাক্তিদের লাশ দাফনের জন্য কেহ এগিয়ে আসতো না। লাশ ফেলে রেখে স্বজনরা পালিয়ে যেত। তখন ওলামায়ে কেরাম করোনায় মৃতদের লাশ দাফন কাফনের মতো বিশাল সেবামূলক কাজ করেছেন। ওলামায়ে কেরাম না থাকলে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতদের লাশ কুকুর শেয়ালে ছিঁড়ে ছিঁড়ে খেত। আল্লামা শাহ জমির উদ্দিন রহ. কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত আল মানাহিল ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন, আল মারকাজুল ইসলামি এবং তাকওয়া ফাউন্ডেশন করোনাকালীন সময়ে সেবামূলক বহু কাজ করেছেন। সুতরাং ওলামায়ে কেরামকে নিয়ে বিষোদগার করলে এদেশের তৌহিদি জনতা বরদাশত করবে না।

মাহফিলের শেষ অধিবেশন ছিল সমাবর্তন তথা দাওরা হাদীস (মাস্টার্স) উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদেরকে সম্মাননা পাগড়ি প্রদান। শিক্ষার্থীরা আবেগঘন পরিবেশে পাগড়ি গ্রহণ করেন। পাগড়ি প্রদান শেষে মজলিসে ইদারীর প্রধান মুফতী আজম আল্লামা আব্দুচ্ছালাম চাটগামী মূল্যবান নসীহত করে মুনাজাতের মাধ্যমে মাহফিল সমাপ্তি করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো লেখা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com